নতুন ভোটার হওয়ার অঙ্গীকারনামা

নতুন ভোটার হওয়ার অঙ্গীকারনামা

 নতুন ভোটার হওয়ার অঙ্গীকারনামা

নতুন ভোটার নিবন্ধনের কার্যক্রম একটি চলমান প্রক্রিয়া এবং প্রায় সারা বছরই এ প্রক্রিয়া চালু থাকে। নির্বাচন চলাকালীন সময় ব্যতীত যে কোন সময় অফিস থেকে ২ নং ভোটার নিবন্ধন ফরম সংগ্রহ করে অথবা অনলাইনে নতুন ভোটার হওয়ার আবেদন করে খুব সহজেই নতুন ভোটার হওয়া যায়। নতুন ভোটার হতে হলে প্রয়োজনীয় কাগজপত্রের সাথে সাথে অনেকের ক্ষেত্রে অঙ্গীকারনামা জমা দেয়ার প্রয়োজন হয়। নতুন ভোটার হওয়ার অঙ্গীকারনামা তৈরী করা যদিও খুব সহজ তারপরেও অনেকে সঠিকভাবে অঙ্গীকারনামা তৈরী করতে পারেন না বা আবেদনের সাথে জমা দেন না বিধায় নতুন ভোটার হতে গিয়ে ভোগান্তি বেড়ে যায়। 


নতুন ভোটার হওয়ার অঙ্গীকারনামা সবার ক্ষেত্রেই প্রয়োজন না হলেও ভোটার হওয়ার সময় সবারই অঙ্গীকারনামা জমা দেয়া উচিত। বর্তমানে যাদের জন্ম তারিখ  ০১/০১/২০০৪ সাল বা তার পূর্বে জন্মগ্রহণ করেছেন তাদেরকে ভোটার হিসেবে নিবন্ধিত করা হচ্ছে। একজন আবেদনকারীর জন্ম তারিখ যদি ২০/১২/২০০৩ সাল হয় ক্ষেত্রে তার অঙ্গীকারনামা নাও চাওয়া হতে পারে, কারণ দুই-চার বছর পূর্বে তার ভোটার হওয়ার সুযোগই ছিলো না। কিন্ত যে ব্যক্তি অভারএজ বা জন্ম তারিখ ২০০০ সালের পূর্বে তার ক্ষেত্রে অঙ্গীকারনামা বাধ্যতামূলক হতে পারে। নতুন ভোটার হওয়ার ক্ষেত্রে অঙ্গীকারনামা চাওয়ার কারণ হচ্ছে ওই ব্যক্তি একাধিকবার ভোটার হচ্ছেন কি না সে বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া। বর্তমান সময়ে দ্বৈত ভোটার বা একাধিকবার ভোটার হওয়ার প্রবণতা অনেক বেশি দেখা যাচ্ছে বিধায় প্রতিটি ভোটারের ক্ষেত্রে অঙ্গীকারনামা চাওয়া হয়। যদিও একাধিবার ভোটার হওয়ার পরিনাম খুবই ভয়াবহ, তবুও অনেকে তথ্য গোপন করে দ্বৈত ভোটার হয়। 

নতুন ভোটারের অঙ্গীকারনামা নিম্নোক্তভাবে লেখা যেতে পারেঃ- 

নতুন ভোটারের অঙ্গীকারনামা খুব বেশি বড় করে লেখার কিছু নেই, মূল কথাগুলো অঙ্গীকারনামার মধ্যে উল্লেখ থাকলেই হবে। 

নতুন ভোটার হওয়ার অঙ্গীকারনামা

 

          এই মর্মে অঙ্গীকার করছি যে, আমি মোঃ আরিফুল ইসলাম, পিতা: মোঃ দেলোয়ার হোসেন, মাতাঃ মোছাঃ সালমা বেগম, গ্রাম/মহল্লাঃ কচুবাড়িয়া, পোষ্টঃ কচুবাড়িয়া, উপজেলাঃ নাটোর, জেলাঃ নাটোর। আমি অত্র এলাকার একজন স্থায়ী বাসিন্দা। চাকরিরত/লেখাপড়ার কারণে বাড়ির বাহিরে অবস্থান করায় আমি সময়মত ভোটার হতে পারিনি। তাই নতুন ভোটার হিসেবে নিবন্ধিত হওয়ার জন্য আপনার দপ্তরে আবেদন দাখিল করছি। আমি আরো অঙ্গীকার করছি যে, আমি ইতোপূর্বে বাংলাদেশর কোথায়ও ভোটার হইনি এবং এই প্রথমবার ভোটার হওয়ার জন্য আবেদন করছি। যেহেতু একাধিকবার ভোটার হওয়া আইনত দন্ডণীয় অপরাধ সেহেতু আমি দ্বৈত ভোটার হলে বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন আমার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারবে এবং আমি তা মেনে নিতে সর্বদা বাধ্য থাকবো। এমতাবস্থায়, আমাকে নতুন ভোটার করার জন্য আপনার নিকট সবিনয় অনুরোধ করছি।


অঙ্গীকারকারীর স্বাক্ষর/টিপসহি

মোঃ আরিফুল ইসলাম
পিতাঃ মোঃ দেলোয়ার হোসেন
গ্রামঃ কচুবাড়িয়া, পোষ্টঃ কচুবাড়িয়া
উপজেলাঃ নাটোর, জেলাঃ নাটোর
 

নতুন ভোটার হওয়ার সময় অন্যান্য কাগজপত্রের সাথে উপরোক্তভাবে নতুন ভোটার হওয়ার অঙ্গীকারনামা তৈর করে নিয়ে আবেদন জমা দেয়া যেতে পারে। তাহলে অঙ্গীকারনামার জন্য হয়তো অফিস থেকে ফেরত আসা লাগবে না। তাছাড়া আপনাদের সুবির্ধাতে উপরোক্ত লেখাগুলো পিডিএফ আকারে তৈরী করে দিয়ে দিচ্ছি। নিচের ডাউনলোড লিংকে ক্লিক করে পিডিএফটি ডাউনলোড করে প্রিন্ট করে নিতে পারেন।

নতুন ভোটারের অঙ্গীকারনামা বিষয়ে যদি কোন প্রশ্ন থাকে তাহলে কমেন্টস করবেন। আপনাদের প্রশ্নের উত্তর দিতে চেষ্টা করবো। লেখাটি ভালো লাগলে বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করার অনুরোধ রইলো। ধন্যবাদ...!

নতুন ভোটার হওয়ার অঙ্গীকারনামা পিডিএফ

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন (0)
নবীনতর পূর্বতন